দিনে পাঁচবার ‘হনুমান চল্লিশা’ পড়লে করোনা দূর হবে:বিজেপি নেতা

দিনে পাঁচবার ‘হনুমান চল্লিশা’ পড়লে করোনা দূর হবে বলে দাবি করেছেন ভারতের ভূপাল রাজ্যের হিন্দুত্ববাদী বিজেপির সন্ত্রাসী এমপি সাধ্বী প্রজ্ঞা।

তিনি বলেন, আজ থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত দিনে পাঁচবার হনুমান চল্লিশা পড়ুন তাহলে করোনা দূর হয়ে যাবে।

শনিবার (২৫ জুলাই) টুইটারে দেওয়া একটি ভিডিও বার্তায় তিনি এই দাবি করেন বলে এনডিটিভি ও আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে।

হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসী নেত্রী সাধ্বী প্রজ্ঞা বলেন, আসুন একসঙ্গে আধ্যাত্মিক প্রচেষ্টার মাধ্যমে মানুষের সুস্বাস্থ্য কামনা করি এবং করোনার মহামারীকে শেষ করে দিই। ২৫ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টা থেকে বাড়িতে বসে পাঁচবার হনুমান চল্লিশা পাঠ করুন। ৫ আগস্ট অযোধ্যায় মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন হয়ে গেলে, প্রদীপ জ্বালিয়ে ভগবান রামের আরতি করে তবেই এই রীতি সম্পন্ন করুন।

তিনি দাবি করে বলেন, দেশের সব হিন্দুরা একযোগে হনুমান চল্লিশা পাঠ করলে, কাজ হবেই। করোনার প্রকোপ থেকে মুক্তি মিলবে। কারণ সরাসরি ভগবান রামের কাছে প্রার্থনা করছি আমরা।

অবশ্য পূজার মাধ্যমে করোনা তাড়ানোর দাবি ভারতে এটিই প্রথম নয়। গত কয়েকদিনে বেশ কয়েকজন হিন্দুত্ববাদী বিজেপি নেতা এমন দাবি করেছেন।

মোদি সরকারের পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়াল সম্প্রতি নিজের দফতরে দু’হাতে পাঁপড় নিয়ে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন।

আবার অযোধ্যায় হিন্দু সন্ত্রাসীদের হাতে শহীদ হওয়া বাবরি মসজিদের জমিতে রামমন্দিরের নির্মাণ শুরু হলেই করোনা ভারত ছেড়ে পালাতে বাধ্য হবে বলেও বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন মধ্যপ্রদেশের প্রোটেম স্পিকার রামেশ্বর শর্মা।

আবার অযোধ্যায় হিন্দু সন্ত্রাসীদের হাতে শহীদ হওয়া বাবরি মসজিদের জমিতে রামমন্দিরের নির্মাণ শুরু হলেই করোনা ভারত ছেড়ে পালাতে বাধ্য হবে বলেও বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন মধ্যপ্রদেশের প্রোটেম স্পিকার রামেশ্বর শর্মা।

সূত্র: সাউথ এশিয়ান মনিটর