লিবিয়ায় এরদোয়ানই একমাত্র সৎ ভূমিকায় আছেনঃ ফরাসী পত্রিকা

ইস্তাম্বুল|


ফ্রান্সের ম্যাগাজিন Le Canard enchaine জানিয়েছে যে ভূমধ্যসাগর, লিবিয়া এবং সাইপ্রাস সম্পর্কিত নীতিতে একমাত্র তুরস্ক সৎ খেলছে।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান লিবিয়ার একমাত্র খেলোয়াড়, যে সততার সাথে লিবিয়াতে কাজ করছেন এবং আঙ্কারা প্রশাসন তার আঞ্চলিক কোন এজেন্ডা গোপন করছে না, বুধবার একটি ফরাসি ম্যাগাজিন জানিয়েছে।

ফ্রান্সের ম্যাগাজিন লে ক্যানার্ড এনচাইন-এর আর্টিকেল অনুসারে, প্রাক্তন এক ফরাসী কূটনীতিকদের মতামত অন্তর্ভুক্ত করে বলে যে, তুরস্কের রাষ্ট্রপতি এরদোয়ানই একমাত্র সৎ ব্যক্তি যিনি ভূমধ্যসাগর, লিবিয়া এবং সাইপ্রাসে তার সামরিক, ভূ-রাজনৈতিক ও শক্তি লক্ষ্যগুলি গোপন করছেন না।

খবরে বলা হয়, লিবিয়ার বিদ্রোহী নেতা খলিফা হাফতার রাশিয়া, মিশর, সংযুক্ত আরব আমিরাত, সৌদি আরব এবং ফ্রান্সের সমর্থনে আস্থা রেখেছিলেন। তবে, বৈধ লিবিয়া প্রশাসন হাফতারকে তুরস্কের সমর্থন দিয়ে পরাজিত করতে সক্ষম হয়েছিল।

এছাড়াও, অংশটি বলেছে যে লিবিয়া সরকার মিশরের রাষ্ট্রপতি আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসির সাম্প্রতিক লিবিয়া নিয়ে দেওয়া বক্তব্যকে লিবিয়াতে মিশরের সরাসরি হস্তক্ষেপের একটি সম্ভাবনা – যুদ্ধের ঘোষণা এবং দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের শামিল মনে করে উল্লেখ্য করা হয়।

২০১১ সালে প্রয়াত শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর থেকে লিবিয়া গৃহযুদ্ধের দ্বারা ছিন্ন হয়ে পড়েছে। জাতিসংঘের নেতৃত্বাধীন চুক্তির আওতায় দেশটির নতুন সরকার ২০১৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল, তবে হাফতারের সামরিক আক্রমণে দীর্ঘমেয়াদী রাজনৈতিক বন্দোবস্তের প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছিল।
ফাইজ আল সররাজের নেতৃত্বাধীন লিবিয়ান সরকারকে দেশটির বৈধ কর্তৃত্ব হিসাবে জাতিসংঘ স্বীকৃতি দেয় কারণ ত্রিপোলি হাফতারের মিলিশিয়াদের বিরুদ্ধে লড়াই করে।
রাজধানী ত্রিপোলিতে হাফতারের আক্রমণ মোকাবেলায় এই সরকার মার্চ মাসে অপারেশন পিস স্টর্ম শুরু করেছিল এবং সম্প্রতি পশ্চিম লিবিয়ায় হাফতারের চূড়ান্ত ঘাঁটি তারহুনাসহ কৌশলগত অবস্থানগুলি মুক্তি দিয়েছে।

সোর্স: আনাদোলু এজেন্সি
অনুবাদঃ ইকবাল এফটি আলভী


© টি আর টি বাংলা ডেস্ক