দূর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে লিবিয়ার সেনাবাহিনী, তৈল সমৃদ্ধ সিরত ও আল জুফরা দখলের পথে

 

ইস্তাম্বুল|


ত্রিপোলি ও তারহুনা দখল করার পর দূর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে লিবিয়ার সেনাবাহিনী। সাম্প্রতিক তাঁরা গুরুত্বপূর্ণ দুইটি শহর সিরত ও আল জুফরা দখলের জন্য এগিয়ে যাচ্ছেন লিবিয়ার সেনাবাহিনী। গতকাল লিবিয়ার প্রাক্তন কম‍্যান্ডার ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক ইব্রাহীম ক্বাসূদাহ এ সংবাদ জানিয়েছেন।‌

লিবিয়ার রাজধানী তারাবলুস বা ত্রিপোলি ও গুরুত্বপূর্ণ তারহুনা দখল করার পর দূর্বার গতিতে এগিয়ে চলছেন লিবিয়ার সেনাবাহিনী।‌ গতকাল শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত লিবিয়ার সেনাবাহিনী গুরুত্বপূর্ণ সিরতের নিকটে পৌঁছে গেছেন। সিরত ও আল জুফরা দখলে লিবিয়ার সেনাবাহিনীর কম‍্যান্ডার ইব্রাহীম বাইতুল মাল বলেন, “আমরা সিরত থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে (অবস্থান করছি) এবং সিরত মুক্তকরণ সময়ের ব্যাপার মাত্র।”

এদিকে আল জুফরা দখলের জন্য কাজ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন তুরস্কের রাষ্ট্রপতি রজব তৈয়‍্যব এরদোগান। তিনি গতকাল একটি সাক্ষাৎকারে বলেন, ” আল জুফরা ঘাঁটি দখলের অভিযান চলমান।” তিনি এদিন সিরত দখলের গুরুত্ব বর্ণনা করতে গিয়ে জানান যে, সিরত ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চল তৈলখনির জন্য গুরুত্বপূর্ণ।‌

উল্লেখ্য ২০১১ সালে গদ্দাফীর পতনের পর ২০১৪ সালে সেখানে সরকার গঠিত হলে কিছু আরব রাজবংশ, ফ্রান্স ও রাশিয়ার সমর্থনে সন্ত্রাসি হফতার দেশটিকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেয়। কয়েকমাস আগে লিবিয়ার সরকার সন্ত্রাসি দমন অভিযান ‘আসিফাতুস সালাম’ বা শান্তির ঝড় অভিযান শুরু করে। রাজধানীকে সন্ত্রাসি মুক্ত করার পর এখন পূর্ণ লিবিয়া সন্ত্রাসি মুক্ত করার জন্য অভিযান শুরু করেছে লিবিয়া সরকার। বর্তমান চলমান অভিযানের নাম ‘আমালিয়‍্যাতু দারবিন নাস্বর’ বা বিজয়ের পথ অভিযান রাখা হয়েছে।


© টি আর টি বাংলা ডেস্ক