আসাদ-ইরান সমর্থিত সন্ত্রাসি কর্তৃক হযরত উমর বিন আব্দুল আজীজ রহঃ এঁর কবর ধ্বংসের তীব্র নিন্দা জানাল তুরস্ক

 

ইস্তাম্বুল|


সিরিয়াতে আসাদ ও ইরান সমর্থিত সন্ত্রাসি কর্তৃক সাম্প্রতিক খলীফাতুল মুসলিমীন আমীরুল মু’মিনীন হযরত উমর বিন আব্দুল আজীজ রহঃ এঁর কবর ধ্বংস ও খননেন মতো বর্বরতার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে তুরস্ক। এখবর জানিয়েছে তুরস্কের আরবী সংবাদমাধ্যম ওকালাতু আনবা’য়ি তুরকিয়া।

সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশের মা’আররাত নু’মান অঞ্চলে অবস্থিত উমাইয়‍্যাহ খলীফা আমীর উল মু’মিনীন হযরত উমর বিন আব্দুল আজীজ রহঃ এঁর কবর ধ্বংসের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে তুরস্ক। তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ডেপুটি ইয়াভূজ সেলীম কিরান একটি টুইটবার্তায় শীয়া তাকফীরি সন্ত্রাসি গোষ্ঠীর এমন বর্বরতার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি তাঁর টুইট বার্তায় বলেন, ” উক্ত অঞ্চলে সুন্নী ও উসমানী স্থাপনার উপর সিরিয়ার সরকার ও তার সমর্থকদের শঠতাপূর্ণ আক্রমণের আমরা তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।”

সাম্প্রতিক শীয়া সন্ত্রাসি কর্তৃক সিরিয়ার মা’ররাত নো’মানে তিনটি কবর খননের ভিডিও সোশ‍্যাল মিডিয়ায় সাংবাদিকরা ভাইরাল করেন। ধারণা করা হচ্ছে এই তিনটি কবর হল আমীর উল মু’মিনীন হযরত উমর বিন আব্দুল আজীজ রহঃ, তাঁর স্ত্রী ফাত্বিমাহ বিনতে আব্দুল মালিক রহঃ ও তাঁর খাদিম আবূ যাকারিয়া ইবনে ইয়াহইয়া রহঃ এঁর। ভিডিওটি সোশ‍্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হবার পর মুসলিম বিশ্বে প্রবল সমালোচনার ঝড় ওঠে। উক্ত জাতিবিদ্বেষী, গোঁড়া ও বর্বর সন্ত্রাসিরা কেবল কবল খুঁড়েই ক্ষান্ত হয়নি, তারা সেখানে ইঁটে আগুন লাগিয়ে দেয়।

উল্লেখ্যঃ হযরত উমর বিন আব্দুল আজীজ রহঃ উমাইয়‍্যা খিলাফতের একজন ধর্মপ্রাণ ও ন‍্যায়পরায়ণ খলীফা ছিলেন। তাঁর ন‍্যায় পরায়ণতার জন্য তাঁকে ‘উমর আস সানী’ বা দ্বিতীয় উমর বলা হয়। প্রথম উমর হলেন খুলাফায়ে রাশেদীনের দ্বিতীয় খলীফা ও সাহাবা আমীর উল মু’মিনীন হযরত উমর ইবনুল খাত্তাব আল ফারূক্ব রাদ্বিয়াল্লাহু ‘আনহু।


© টি আর টি বাংলা ডেস্ক