সিনজার চুক্তিঃ ইরাকের সাথে একত্রে সন্ত্রাসী দমন করতে চায় তুরস্ক

বাগদাদ|


সাম্প্রতিক ইরাক সরকার ও ইরাকের কুর্দি সরকার যৌথভাবে ‘সিনজার’ চুক্তি সাক্ষর করেছে। সন্ত্রাসী নিধন এই চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে তুরস্ক। তুরস্ক ইরাকের সাথে ঐক‍্যবদ্ধভাবে সন্ত্রাসী দমন অভিযানে যোগ দেওয়ার আশা প্রকাশ করেছে। এ সংবাদ জানিয়েছে আরবী সংবাদমাধ্যম ওকালাতু আনবা’য়ী তুরকিয়া।

গত শুক্রবার ইরাকী প্রধানমন্ত্রী কুর্দি কে আর জি সরকারের সাথে একটি ‘ঐতিহাসিক’ চুক্তির কথা ঘোষণা করেছেন। গতকাল অর্থাৎ শনিবার ইরাক সরকার জানিয়েছে যে, ইরাকের সন্ত্রাসী প্রভাবিত সিনজার অঞ্চলকে কেন্দ্র করে ইরাক সরকার ও কুর্দি অন্তর্বর্তী সরকার হুকুমাতু ইকলীমি কুরদিস্তানের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হবার কথা জানিয়েছে। সিনজার অঞ্চলকে পিকেকে ও হাশদে শাবী সন্ত্রাসী মুক্ত করে সেখানে আবার ছেড়ে যাওয়া জনগণের পূণর্বাসন করা হবে বলে জানা গেছে।

তুরস্ক এই চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে। ইরাকে নিযুক্ত তুর্কি দূত ফাতিহ ইলদিজ টুইটবার্তায় এই চুক্তিকে স্বাগত জানিয়ে ইরাকের সাথে জোট বাঁধার আশা প্রকাশ করেন। তিনি এই চুক্তির কথা উল্লেখ করে বলেন,

” এপ্রসঙ্গে স্থিতিশীলতার জন্য ও সিনজার ও ইরাকের অন‍্যান‍্য অংশ যেখানে সন্ত্রাসী সংগঠন রয়েছে (সেখানে) সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য আমি ইরাকী কর্তৃপক্ষ সমূহের সাথে জোট বাঁধার প্রস্তুতির (বিষয়টি) আবার নিশ্চিত করছি।”

উল্লেখ্য ইরাকের সিন্জার অঞ্চলে দায়েশ উগ্রপন্থীদের উৎপাত শুরু হবার পর সেখানে থেকে এক বিশাল সংখ্যক ইয়াজিদী ও অন‍্যান‍্য বাসিন্দারা অঞ্চলটি ছেড়ে পলাতে বাধ‍্য হয়। এরপর দায়েশ দমনের নামে পিকেকে সন্ত্রাসীরা সেখানে উৎপাত শুরু করে।


© টি আর টি বাংলা

 23 total views,  2 views today

Start Blogging

Register Here


Registered?

Login Here

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.